আগামীর মেধাবী বাংলাদেশ গঠনে যোগ্য ও নৈতিকতা সম্পন্ন মানবসম্পদ তৈরী করছে এইউবি

আগামীর মেধাবী বাংলাদেশ গঠনে যোগ্য ও নৈতিকতা সম্পন্ন মানবসম্পদ তৈরী করছে এইউবি

এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর শ্লোগান হলো ‘স্বল্প খরচে মানসম্মত ও আধুনিক শিক্ষা’। একটি দেশ একটি জাতিকে এগিয়ে নিতে হলে প্রয়োজন সৎ ও দক্ষ জনবল। ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যকে পুজি করে নয়, বরং সৎ, দক্ষ, যোগ্য ও মেধাবী মানবসম্পদ গড়ে তোলার লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে স্বপ্ন ও সফলতার সেতুবন্ধন এইউবি।

দীর্ঘ ২৭ বছরের পথ পরিক্রমায় আজ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি এক সুপ্রতিষ্ঠিত নাম। একটি বিশাল ক্যাম্পাস, হাজারো তরুণ-তরুণীর স্বপ্নবুনন আর স্বপ্নপূরনের ঠিকানা।

বর্তমান প্রতিযোগিতামূলক বাজারে নিজেকে দক্ষ ও যোগ্য গ্র্যাজুয়েট হিসেবে গড়ে তুলতে প্রতিটি শিক্ষার্থীর স্বপ্ন থাকে স্কুল-কলেজের গন্ডি পেরিয়ে সে একটি বড় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবে। যার থাকবে বিশাল একটি ক্যাম্পাস, সুন্দর একটি পরিবেশ। নিজেকে নানান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ করতে প্রতিটি শিক্ষার্থী নতুন স্বপ্ন দেখে। স্বপ্ন বাস্তায়নে সাধ, সাধ্য আর উচ্চশিক্ষার তীব্র আকাঙ্খাকে বাস্তবে রূপ দিতেই দীর্ঘ ২৭ বছর পূর্বে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো উচ্চশিক্ষার বাতিঘর এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ।
SSC ও HSC জিপিএ ৫ (গোল্ডেন) প্রাপ্তদের জন্য ১০০% স্কলারশীপ, SSC ও HSC জিপিএ ৫ (জেনারেল) প্রাপ্তদের জন্য ৫০%, SSC ও HSC জিপিএ ৪+৪ (চতুর্থ বিষয় ছাড়া) প্রাপ্তদের জন্য ২৫% স্কলারশীপ দেয়া হচ্ছে। দরিদ্র মেধাবীদের সুযোগ দিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে ফুল ফ্রি স্কলারশিপ ও ওয়েভার সুবিধা। এছাড়া ভাইবোন ও স্বামী-স্ত্রীরা পাচ্ছে বিশেষ ছাড়। মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের প্রতিবছর প্রায় ২ কোটি টাকার শিক্ষাবৃত্তি দেয়া হচ্ছে। মহান মুক্তিযুদ্ধে যারা দেশের তরে যুদ্ধ করেছেন সেই সব বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানরা এখানে সম্পূর্ণ বিনা খরচে পড়ালেখা করার সুযোগ পাচ্ছে।

এইউবি স্থায়ী ক্যাম্পাস প্রায় দশ একর জায়গার উপর নির্মিত। যা মনোরম পরিবেশ আর সু-নিবিড় ছায়াশীতল বিশ্বমানের ক্যাম্পাস। চমৎকার শিক্ষার পরিবেশ আর ডিজিটাল ক্যাম্পাস পেয়ে মুগ্ধ ছাত্রছাত্রীরা। সবুজে ভরপুর ক্যাম্পাসটি শিক্ষার্থীদের পদচারনায় মুখরিত। এখানে শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে ফুটবল মাঠ, ক্রিকেট মাঠ, ভলিবল ও ব্যাডমিন্টন মাঠ। এছাড়াও ইনডোর গেমে টেবিল টেনিস, ক্যারাম, দাবাসহ অন্যান্য খেলার সামগ্রী সংযোজিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে ফ্রি ওয়াইফাই এবং ফ্রি যাতায়াত ব্যবস্থা। মেয়েদের জন্য রয়েছে আলাদা কমনরুম ও নামাজের ব্যবস্থা।

এশিয়ান ইউনিভার্সিটির রয়েছে বিশ্বমানের মেধাবী একঝাক নবীন ও প্রবীণ শিক্ষক। যারা তাদের অভিজ্ঞতা ও মেধার নির্যাস থেকে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করে থাকেন। এইউবি Teaching Efficiency Rating এর মাধ্যমে শিক্ষকদের পারফর্মেন্সের মূল্যায়ন করে থাকেন। প্রতি সেমিস্টারে একজন শিক্ষক যে বিষয়ে পাঠদান করেন, সে বিষয়ে শিক্ষকের জ্ঞানের পরিধি, শিক্ষাদান পদ্ধতি, উপস্থাপন কৌশল ও আচরণিক বিষয়গুলো বিবেচনার মাধ্যমে এ মূল্যায়ন করা হয়ে থাকে। এইউবি শিক্ষার মান বজায় রাখতে এ দেশের মানুষের কাছে দায়বদ্ধ। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সৎ ও দক্ষ শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে আরো উজ্জ্বল করে তুলে ধরবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

এইউবি বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মাদ জাফার সাদেক একজন তুখোড় একাডেমিশিয়ান। অসাধারণ মেধাবী একজন মানুষ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালে গোল্ডমেডালিস্ট এবং টপার। তিনি অষ্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন ইউনিভর্সিটি থেকে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করে বর্তমানে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন।

এই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শাহজাহান খান কানাডার ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টার্ন অন্টারিও থেকে ম্যাথমেটিক্যাল স্ট্যাটিস্টিকস এ পিএইচডি (১৯৯২) এবং এমএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিসংখ্যানে বিএসসি (সম্মান) এবং এমএসসিতে প্রথম শ্রেণি অর্জন করেন।
তিনি ১৯৮০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক হিসেবে তার শিক্ষকতা জীবন শুরু করেন, তিনি অস্ট্রেলিয়ার ইউনিভার্সিটি অব সাউদার্ন কুইন্সল্যান্ড, কিং ফাহাদ ইউনিভার্সিটি অব পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মিনারেল, সৌদি আরবে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ইউনিভার্সিটি অব সাউদার্ন কুইন্সল্যান্ড, অষ্ট্রেলিয়ায় অধ্যাপক এবং পরিসংখ্যানের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও তিনি, সুলতান কাবুস বিশ্ববিদ্যালয়, ওমান এবং বাহরাইন বিশ্ববিদ্যালয়, বাহরাইনে অধ্যাপনা করেছেন।

এইউবি ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ নূরুল ইসলাম ইতিপূর্বে বাংলাদেশ কৃষিবিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক ও ডিন হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেছেন। সুদীর্ঘ প্রায় ৪১ বছর বাকৃবিতে শিক্ষকতায় ও গবেষণায় নিয়োজিত থাকার সময় ডেয়রী বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, এনিম্যাল হাজভেন্ড্রি ফ্যাকাল্টি এর ডিন, বাকৃবি এর ডিন কাউন্সিলের কনভেনর, বি.এস.টি.আই এর দুগ্ধও দুগ্ধজাত পণ্য শাখার চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ এনিম্যাল হাজভেন্ডি এসোসিয়েশনের সভাপতি, ইউনাইটেড নেসন ইন্ডাস্ট্রিয়ালি ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন ( ইউনিডো) এর ডেয়রী বিশেষজ্ঞ হিসেবে বিভিন্ন ধরনের গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করেছেন।

একটি বিশাল ক্যাম্পাস, একদল প্রশিক্ষিত ও দক্ষ শিক্ষকমন্ডলী, প্রিয় কিছু বন্ধুবান্ধব আর মেধাবী একটি প্রতিষ্ঠানের স্বপ্ন যারা দেখেছেন তাদের জন্যই এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ।

বিস্তারিত জানতে ও যোগাযোগ:
লিংক: aub.ac.bd.
ফোন: ০১৬৭৮৬৬৪৪১৭-১৯.

লেখক: প্রতিষ্ঠাতা, এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *