ইউআইটিএস ও নেপালের ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঝে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত

ইউআইটিএস ও নেপালের ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঝে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত

ইউনিভার্সিটি অব ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সায়েন্সেস (ইউআইটিএস) ও নেপালের ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঝে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় ইউআইটিএসের সভাকক্ষে এ স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়।

.

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল (আইকিউএসি) কতৃক এ মহতী আয়োজনের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক একাডেমিক সহযোগিতার একটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক অর্জন করেছে ইউআইটিএস।

ওইদিন নেপালের ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয়ের (টিইউ) অধিভুক্ত সুকুনা মাল্টিপল ক্যাম্পাসের ৩০ জন শিক্ষকের একটি প্রতিনিধি দল ইউআইটিএস পরিদর্শন করে। এসময় একটি অনুষ্ঠানে গুরুত্বপূর্ণ এ সমঝোতা স্মারকে (এমওইউ) স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্বাক্ষর করা হয়।

স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ইউআইটিএসের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: আবু হাসান ভূঁইয়া, ট্রেজারার অধ্যাপক ড. সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ কামরুল হাসান এবং আইকিউএসির পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মো: সাফায়েত হোসেন-সহ সম্মানিত ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সুকুনা মাল্টিপল ক্যাম্পাসের প্রতিনিধিত্ব করেন ক্যাম্পাস প্রধান প্রফেসর অর্জুনরাজ অধিকারী, ক্যাম্পাস ম্যানেজমেন্ট কমিটির সভাপতি কেশব অধিকারী, সহ-সভাপতি ললিত বাহাদুর শ্রেষ্ঠ এবং অন্য সম্মানিত সদস্যবৃন্দ তাদের সম্মানিত উপস্থিতিতে দ্বিপাক্ষিক চুক্তিকে দৃঢ় করেন।

পারস্পরিক শ্রদ্ধা ও অভিন্ন উদ্দেশ্য স্থাপনের লক্ষ্যে অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশ ও নেপালের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। এই সমঝোতা স্মারকটি ইউআইটিএস এবং সুকুনা মাল্টিপল ক্যাম্পাসের মধ্যে একাডেমিক সহযোগিতার দৃঢ় প্রতিশ্রুতির ইঙ্গিত দেয়। যার লক্ষ্য বিভিন্ন একাডেমিক ক্ষেত্রে অগ্রগতি চালানো এবং উভয় প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও অনুষদ সদস্যের মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময় সমৃদ্ধ করা।

সফরকারী প্রতিনিধি দলটি ইউআইটিএস অনুষদ সদস্য এবং শিক্ষার্থীদের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিল। এ সময় একে অপরের একাডেমিক নীতি এবং সাংস্কৃতিক সৌহার্দ্য সম্পর্কে উৎসাহিত করে। তারা ইউআইটিএসের আধুনিক সুবিধাগুলো নিবিরভাবে পর্যবেক্ষণ করে। যা বিশ্বমানের শিক্ষার পরিবেশ সরবরাহের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের অবিচল প্রতিশ্রুতির একটি প্রমাণ। আইকিউএসি, ইউআইটিএসে আন্তর্জাতিক সহযোগিতাকে উৎসাহিত করে এবং শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষাগত অভিজ্ঞতা সমৃদ্ধ করে একটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক অর্জন করেছে। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *