উপজেলা নির্বাচনে থাকছে না নৌকা : ওবায়দুল কাদের

উপজেলা নির্বাচনে থাকছে না নৌকা : ওবায়দুল কাদের

আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রতীক নৌকা দেবে না বলে জানিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (২২ জানুয়ারি) রাতে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সাথে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরি সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের নৌকা প্রতীক দেব কি-না আলোচনা হয়েছে। উপজেলা নির্বাচনে নৌকা প্রতীক ব্যবহার না করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দলের সভাপতিও একই মত পোষণ করেছেন।

এর আগে সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। গত ৭ জানুয়ারি টানা চতুর্থবারের মতো শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর এটাই ছিল দলটির প্রথম কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠক।

এদিকে মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেলে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে উপজেলা নির্বাচন নিয়ে বলেন, কমিশনের অনুমোদনক্রমে রোজা শুরুর আগেই উপজেলা পরিষদের প্রথম ধাপের ভোট হতে পারে। চাঁদ দেখাসাপেক্ষে আগামী মার্চ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে রোজা শুরু হতে পারে। এজন্য মার্চের শুরুতেই প্রথম ধাপের ভোট সম্পন্ন করতে চায় নির্বাচন কমিশন।

অশোক কুমার বলেন, উপজেলার তালিকা পেয়েছি। সেই অনুযায়ী কমিশন প্রস্তুত আছে। কমিশন সিদ্ধান্ত নিলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন তফসিল ঘোষণা হতে পারে। কীভাবে করবে, ধাপে ধাপে নাকি একবারে করবে, এভাবে যদি সিদ্ধান্ত দেয়, ইসি সচিবালয় প্রস্তুত আছে। রোজা শুরু হওয়ার আগে হয়ত হতে পারে।

ইসি কর্মকর্তা বলেন, এসএসসি পরীক্ষা, রোজাসহ সবকিছু বিবেচনা করব। আমাদের দেশে রোজায় নির্বাচন কম হওয়ার প্র্যাকটিস আছে। সেক্ষেত্রে হয়তো রোজার আগে হতে পারে, পরবর্তী ধাপ ঈদের পরে হতে পারে। প্রথম ধাপের ভোট হয়তো ঈদের আগে হতে পারে।

সূত্র জানিয়েছে, দেশের ৪৯৫টি উপজেলার মধ্যে সাড়ে চারশর বেশি উপজেলার সাধারণ নির্বাচনের ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে। আগামী জুনের মধ্যেই এসব নির্বাচন করতে হবে। বাকিগুলোর কিছু হবে চলতি বছরের দ্বিতীয়ার্ধে আর কিছু নির্বাচন হবে ২০২৭ ও ২০২৮ সালে।

আইন অনুযায়ী, উপজেলা পরিষদের মেয়াদ হচ্ছে প্রথম সভা থেকে পরবর্তী পাঁচ বছর। আর নির্বাচন করতে হয় মেয়াদ পূর্তির আগের ১৮০ দিনের মধ্যে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *