ডীন’স এওয়ার্ড পেল ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির ১১১ শিক্ষার্থী

ডীন’স এওয়ার্ড পেল ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির ১১১ শিক্ষার্থী

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো শিক্ষার্থীদের চমৎকার একাডেমিক, কো-কারিকুলার, এক্সট্রা কারিকুলার পারফরম্যান্সের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ডীন’স অ্যাওয়ার্ড চালু করেছে। ‘ডীনের লিস্ট উদযাপন অনুষ্ঠানের’ আওতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫টি অনুষদের অধীনে বিভিন্ন বিভাগের মোট ১১১ জন শিক্ষার্থীকে আজ ০৫ জুন, ২০২৪ (বুধবার) ডীন’স এওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোঃ সবুর খান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবং এওয়ার্ড উইনারদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এম লুৎফর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এস. এম মাহাবুবুল হক মজুমদার। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন অনুষদের ডিনবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। ডীন’স অ্যাওয়ার্ড বিজযীরা হলেন বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি অনুষদ থেকে ৫৫ জন, ব্যবসা ও উদ্যোক্তা অনুষদ থেকে ১৪ জন, প্রকৌশল অনুষদ থেকে ১৮ জন, জীবন ও স্বাস্থ্য বিজ্ঞান অনুষদ থেকে ১৪ জন এবং মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ থেকে ১০ জন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. মোঃ সবুর খান বলেন, “বর্তমান সময়ের প্রয়োজনের পরিপ্রেক্ষিতে অনুষদের বিভাগগুলো প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এবং দেশ ও সমাজের আর্থ-সামাজিক ও প্রযুক্তিগত উন্নয়নে ভূমিকা রেখেছে। আমরা আশা করি, শিক্ষার্থীরা আরও ভালো মানবিক ও উদার দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে বেড়ে উঠবে এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা ২০৩০ অর্জনে অবদান রাখবে।”

স্নাতকদের অভিনন্দন জানিয়ে ড. মোঃ সবুর খান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় আপনাকে পুরস্কৃত করার সময় শুধু আপনার একাডেমিক গুণাবলীই নয়, আপনার দৃষ্টিভঙ্গি, আচরণ, মানবিক নৈতিকতা, সহপাঠ্যক্রমিক এবং পাঠ্যক্রম বহির্ভূত কার্যক্রমের স্বীকৃতি দিয়েছে। আগামী দিনেও বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরা শিক্ষকদের একইভাবে পুরস্কৃত করা হবে বলেও তিনি জানান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *