ঢাবিতে ভর্তির সুযোগ নেই স্বেচ্ছায় লিঙ্গ পরিবর্তনকারীদের

ঢাবিতে ভর্তির সুযোগ নেই স্বেচ্ছায় লিঙ্গ পরিবর্তনকারীদের

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আন্ডারগ্রাজুয়েট প্রোগ্রামে ‘ট্রান্সজেন্ডার বা হিজড়া’ কোটায় ‘স্বেচ্ছায় লিঙ্গ পরিবর্তনকারীরা’ ভর্তি হতে পারবেন না। তবে জন্মগতভাবে লিঙ্গ বৈচিত্র্যের অধিকারী শিক্ষার্থীরা এ কোটায় ভর্তি হতে কোনো বাধা নেই।

গত বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে অন্তর্ভুক্ত ‘ট্রান্সজেন্ডার’ শব্দটি বাতিলের দাবি জানিয়ে আসছিলো বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী। সে পরিপ্রেক্ষিতে ‘ট্রান্সজেন্ডার/হিজড়া’ কোটার ব্যাখ্যা দিয়ে এ সিদ্ধান্ত জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু সংখ্যক শিক্ষার্থীর গত ২১ ডিসেম্বরের পত্রের পরিপ্রেক্ষিতে আন্ডারগ্রাজুয়েট প্রোগ্রামে ট্রান্সজেন্ডার/হিজড়া কোটায় ভর্তি বিষয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিভ্রান্তি নিরসনের লক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সুস্পষ্টভাবে জানাচ্ছে যে, ২০২২-২০২৩ সেশন থেকে একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আন্ডারগ্রাজুয়েট প্রোগ্রামে ভর্তির ক্ষেত্রে ট্রান্সজেন্ডার/হিজড়া কোটা প্রচলন করা হয়।

কেবল জন্মগতভাবে লিঙ্গ বৈচিত্র্যের অধিকারী শিক্ষার্থীরা ট্রান্সজেন্ডার/হিজড়া কোটায় ভর্তির আবেদন করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে কোটা শনাক্তকরণে সরকারের সমাজসেবা অধিদপ্তর প্রদত্ত হিজড়া (গেজেট নং সকম/কর্ম- ১শা/হিজড়া-১৫-২০১৩-৪০) পরিচয়পত্র অবশ্যই দাখিল করতে হবে।

২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে হিজড়া শব্দের সঙ্গে ট্রান্সজেন্ডার যুক্ত করার পর শব্দটি প্রত্যাহারে গত ২১ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যে মানববন্ধন ও উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেয় একদল শিক্ষার্থী। গত ৩০ ডিসেম্বর এ বিষয়ে তারা সংবাদ সম্মেলন করেন। গত ৩ জানুয়ারি রাজু ভাস্কর্যে চার ঘণ্টা অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন এই শিক্ষার্থীরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *