দেশীয় পণ্যের প্রসার ঘটাতে ইবির সাবেক শিক্ষার্থী টলিনের উদ্যোগ : এএনএইচ গ্রুপের সব পণ্যের ১% অর্থ পাবে ফিলিস্তিনিরা

দেশীয় পণ্যের প্রসার ঘটাতে ইবির সাবেক শিক্ষার্থী টলিনের উদ্যোগ : এএনএইচ গ্রুপের সব পণ্যের ১% অর্থ পাবে ফিলিস্তিনিরা

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সাবেক শিক্ষার্থী মোকাদ্দেস হানিফ টলিন বর্তমানে দেশের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান এএনএইচ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দেশীয় পণ্যের বিক্রয় বাড়াতে গত প্রায় তিন বছর ধরে ‘দেশের টাকা দেশেই থাকুক’ এই স্লোগানে কাজ করে যাচ্ছে তার এএনএইচ গ্রুপ।

ইতোমধ্যে এ গ্রুপের পণ্য ‘বাংলা ওয়াশ’ ডিটারজেন্ট দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। এএনএইচ গ্রুপের পণ্যের মধ্যে রয়েছে কমোডো টয়লেট ক্লিনার, রে ডিশ ওয়াশ, রে হ্যান্ড ওয়াশ, ডুম ডিশ ওয়াশ, লিমো হ্যান্ড ওয়াশ, সোপি ডিটরজেন্ট ইত্যাদি। এসব পণ্যের মাধ্যমে দেশীয় পণ্যের বাজার সমৃদ্ধ করতে চান টলিন।

দেশীয় পণ্যের প্রসার ঘটাতে বেশকিছু উদ্যোগ গ্রহণ করছেন ইবির ইইই বিভাগের ১৯৯৬-৯৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী টলিন। দেশের গন্ডি পেরিয়ে বিদেশের মাটিতেও শোভা পাচ্ছে এএনএইচ গ্রুপের পণ্য।

ক্রিকেটে গতবারের ত্রিদেশীয় সিরিজে টাইটেল স্পন্সর ‘বাংলা ওয়াশ’ এবারো রয়েছে কো-স্পন্সর হিসেবে। বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ড ট্রাই সিরিজে বাংলা আক্ষরে টাইটেল স্পন্সর হয়ে বিশ্ব মঞ্চে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন ‘বাংলা ওয়াশ’ ডিটারজেন্ট। এবারো নিউজিল্যান্ডের মাঠে তাদের দেখা যাচ্ছে বাংলা আক্ষরেই। মূলত বাংলাদেশ দলকে উৎসাহ দিতেই তাদের এই পৃষ্টপোষকতা।

এছাড়াও ইবির সাবেক এই শিক্ষার্থী অসহায় ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়াতে ব্যতিক্রমী এক উদ্যোগ নিয়েছেন। এএনএইচ গ্রুপের বিক্রিত পণ্যের ১% অর্থ ফিলিস্তিনিদের দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন টলিন। ঢাকাস্থ ফিলিস্তিনি দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত ইউসুফ এস ওয়াই রামাদানের সাথে আলোচনাক্রমে এই সিদ্ধান্ত নেয় গ্রুপটি। এসব টাকা দূতাবাসের মাধ্যমে তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সার্বিক বিষয়ে এএনএইচ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোকাদ্দেস হানিফ টলিন বলেন, বাংলাদেশ দলকে উৎসাহ দিতেই মূলত আমরা আবারও কো-স্পন্সর হিসেবে রয়েছি। দেশীয় পণ্যের বিক্রয় বাড়াতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। যাতে করে শুধু এএনএইচ গ্রুপই না দেশীয় অন্যান্য মানসম্পন্ন কোম্পানির পণ্য কিনতেও ক্রেতারা যেন উদ্ভুদ্ধ হন। এছাড়া সকল পণ্য বিক্রয়ের ১ শতাংশ অর্থ ফিলিস্তিনি জনগণকে দেওয়া হচ্ছে। আশা করি, আমাদের এসব উদ্যোগে সবাই এগিয়ে আসবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *