রমজানে তারাবি ও সেহরিতে বিদ্যুতের সমস্যা হবে না : সংসদে প্রধানমন্ত্রী

রমজানে তারাবি ও সেহরিতে বিদ্যুতের সমস্যা হবে না : সংসদে প্রধানমন্ত্রী

আসন্ন রমজান মাসে তারাবির নামাজ ও সেহরির সময় বিদ্যুৎ সরবরাহে কোনো সমস্যা হবে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে তারাবি-সেহরিতে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের বিষয়ে নাটোর-১ আসনের স্বতন্ত্র এমপি আবুল কালামের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ কথা জানান। অধিবেশনে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা অনেক অর্থ ব্যয় করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করি। ভর্তুকি দিয়ে তা বিতরণ করি। এখন বিশ্বব্যাপী জ্বালানি তেল, এলএনজি (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) ও পরিবহনসহ সবকিছুর দাম বেড়ে গেছে। তারপরও আমাদের নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের প্রচেষ্টা রয়েছে।

তিনি বলেন, এটা ঠিক যে যেহেতু আমাদের জ্বালানি তেল ও এলএনজির সংকট আছে, ফলে সময় সময়ে…। তাছাড়া জানেন যে, এগুলো যান্ত্রিক ব্যাপার…। কোনো কোনো সময় বিভিন্ন কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদন হ্রাস পায় বা ব্যাহতও হয়।

সরকারপ্রধান বলেন, আমরা এরই মধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, তারাবির নামাজ ও সেহরির সময় বিদ্যুতের সমস্যা হবে না। বরং বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে প্রয়োজনে দিনের কোনো একসময় যখন চাহিদা কম তখন দু-তিন ঘণ্টা লোডশেডিং করা যেতে পারে। তবে সেটা সহনীয় পর্যায়ে হতে হবে। এভাবে করতে পারলে রমজানে বিদ্যুৎ সংকট হবে না। বিশেষত তারাবি ও সেহরির সময় সংকট হবে না। আমাদের প্রচেষ্টা সেভাবেই থাকবে।

শেখ হাসিনা বলেন, একসময় দেশে প্রতিদিন ১০/১২ ঘণ্টা লোডশেডিং করা হতো। এখন সে অবস্থা নেই। তবে আমার মনে হয় মাঝে মাঝে লোডশেডিং করা ভালো। তা না হলে মানুষ অতীত ভুলে যাবে। অন্তত উপলব্ধি করবে কোথায় ছিলাম আর কোথায় আছি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *