রাজধানীতে ‘টেকনোপ্রেনিউর অলিম্পিয়াড ২০২৪’ আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি

রাজধানীতে ‘টেকনোপ্রেনিউর অলিম্পিয়াড ২০২৪’ আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি

মাই ই-কিডস এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এর উদ্যোগে

তরুণদের আধুনিক প্রযুক্তিজ্ঞান উন্নত করা, তাদের মাঝে উদ্যোক্তাবৃত্তির প্রতি উৎসাহ ও উদ্দীপনা সৃষ্টি করা এবং ইংলিশ মিডিয়াম ও ইংলিশ ভার্সন স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে একটি সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে টেকনোপ্রেনিউর অলিম্পিয়াড ২০২৪। আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি রাজধানীতে মাই ই-কিডস এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এর উদ্যোগে ‘কৌতুহলী উদ্ভাবনী জাগরণ’ প্রতিপাদ্য নিয়ে এই আয়োজন হতে যাচ্ছে।

এই সহযোগিতামূলক প্রয়াসের লক্ষ্য- কিডস পাজল, স্টিম প্রজেক্ট, কোডিং চ্যালেঞ্জ এবং জুনিপ্রেনিউরদের ব্যবসায়িক প্রতিযোগিতা-সহ আকর্ষণীয় প্রতিযোগিতার মাধ্যমে বিভিন্ন বয়সের অংশগ্রহণকারীদের উদ্ভাবনীশক্তিকে উৎসাহিত ও অনুপ্রাণিত করা। এ প্রতিযোগিতা সবার জন্য উন্মুক্ত।

আজ রবিবার (১৪ জানুয়ারি) ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের কনকোর্স হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন, ড্যাফোডিল গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ নুরুজ্জামান। উপস্থিত ছিলেন অুষ্ঠানের আহ্বায়ক ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ মাহমুদুল হাসান ও উপাধ্যক্ষ মহসীনা শারমিন নিশাত, ওয়াহিদা ইসলাম ঝুমুর (ইংলিশ ভার্সন) ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ বিভাগের ঊর্ধ্বতন সহকারি পরিচালক মোঃ আনোয়ার হাবিব কাজল।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩-৩০ মিনিট পর্যন্ত ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে এ আয়োজন চলবে এবং সেরা ৩জন সুপার কিডকে পুরস্কৃত করা হবে এবং প্রত্যেক অংশগ্রহণকারী পাবে সনদ। মাই ই কিডস যেহেতু তরুণ শিক্ষার্থীদেরকে প্রযুক্তিগত উন্নয়নের উপর বেশি জোর প্রদান করে, সেহেতু টেকনোপ্রেনিউর অলিম্পিয়াড দেশের ইংলিশ মিডিয়াম ও ইংলিশ ভার্সনের শিক্ষার্থীদের উদ্যোক্তা তৈরির ক্ষেত্রে অনেক কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানাননো হয়, বাংলাদেশে আজ পর্যন্ত ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল বা অন্য কোন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এই টেকনোপ্রেনিউর অলিম্পিয়াড আয়োজন করতে সক্ষম হয়নি। মাই ই কিডস এইবারই প্রথম অনুষ্ঠানটি আয়োজন করেছে। করোনাকালীন সময়ে সমগ্র বিশ্ব একটি কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছে, যার ফলশ্রুতিতে শিক্ষক শিক্ষার্থী অভিভাবকেরা প্রযুক্তির ব্যাপারে যে নতুন ধারণা পেয়েছে, সেই ধারণাকে আরো শাণিত ও সক্ষমভাবে পরিচালনা করার জন্যে তরুণ শিক্ষার্থীদের প্রযুক্তির প্রতি যথেষ্ট গুরুত্ব ও প্রযুক্তিকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে মাই ই কিডসের এই আয়োজন যুগান্তকারী একটি পদক্ষেপ।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ঘোষিত ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ তৈরির যে রূপকল্প করেছেন, সে রূপকল্পকে বাস্তবে রূপদানের জন্য মাই ই কিডস কর্তৃক আয়োজিত এই টেকনোপ্রেনিউর অলিম্পিয়াড গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আমাদের দেশকে ডিজিটাল থেকে স্মার্ট বাংলাদেশে নেয়ার ক্ষেত্রে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এধরনের কাজে সবসময় অগ্রণী ভূমিকা পালন করে থাকে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

রেজিস্ট্রেশনের সকল তথ্যাদি মাই ই কিডসের ওয়েবসাইটে বিস্তরিত দেয়া আছে।
ওয়েব সাইট: http://myekids.com/technopreneur-olympiad-2024
যোগাযোগের জন্য: মাই ই কিডস্ তথ্য কেন্দ্র (০১৭১৩৪৯৩২৯১)।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *