শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি’র বিশেষ আলোচনা সভা

শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি’র বিশেষ আলোচনা সভা

“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি?” সত্যিই আমরা কখনো আমাদের মায়ের ভাষাকে ভুলতে পারবো না, মায়ের ভাষাকে ভুলে গেলে আমরা আমাদের মনের ভাব প্রকাশ করতে পারবো না। বাংলা ভাষার শান্তি আর সুধাকে ভালোবেসে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজন করে এক বিশেষ আলোচনা সভার।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এইউবি প্রতিষ্ঠাতা বিশিষ্ট কবি সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. আবুল হাসান মুহাম্মদ সাদেক। সম্মানীয় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এইউবি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মাদ জাফার সাদেক, সভাপতিত্ব করেন এইউবি উপাচার্য ইমেরিটাস প্রফেসর ড. শাহজাহান খান, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো: নূরুল ইসলাম, স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. রিটা আশরাফ। মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন কলা অনুষদের ডীন ও ইসলামের ইতিহাস ও সভ্যতা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর এ.এইচ.এম.এ ছালেক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. আবুল হাসান মুহাম্মদ সাদেক বলেন, বায়ান্ন একটি চেতনা। যে চেতনা ধারণ করেই প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল এই বিশ্ববিদ্যালয়। এই চেতনা এমন যে, বিদেশে গিয়ে কোথাও বাংলা লেখা দেখলে ভালো লাগে, বাংলাদেশের পতাকা দেখলে তার পাশে দাড়িয়ে থাকতে ইচ্ছা করে। প্রধান অতিথি উপস্থিত ছাত্রছাত্রীসহ সবাইকে বাংলা ভাষার চেতনাকে ধারণ ও লালন করতে বলেন। এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এর সকল ছাত্রছাত্রীসহ সবাইকে সর্বক্ষেত্রে বাংলা ভাষা চর্চা বৃদ্ধির জন্য গুরুত্ব আরোপ করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. মো: নূরুল ইসলাম বলেন, বাংলা ভাষার আন্দোলন থেকেই মহান মুক্তিযুদ্ধের সূচনা। আমাদের বর্তমান প্রজন্মকে বাংলা ভাষার ফেরিওয়ালা হতে হবে। সারা বিশ্বে এই বাংলা ভাষাকে ছড়িয়ে দিতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে এইউবি উপাচার্য প্রফেসর ড. শাহজাহান খান বলেন, আমরা সবাই মিলে স্মরণ করবো ভাষা শহীদদের কথা, যাদের আত্বত্যাগের বিনিময়ে আমরা পেয়েছি মায়ের ভাষা। তাদের প্রতি সবাই দোয়া করেন। বাংলা ভাষাকে উচ্চে তুলে ধরতে হবে। দেখার বিষয় হলো, আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য বাংলা ভাষাকে আমরা কতটুকু সুরক্ষিত রেখে যেতে পারছি। কোথাও বাংলা ভাষার বিকৃতি হলে তা সংশোধন করতে আহবান জানান এশিয়ান ইউনিভার্সিটি’র সকল শিক্ষার্থীদের।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন এইউবি’র বিভিন্ন অনুষদের ডীন, বিভাগীয় প্রধান, ফ্যাকাল্টিবৃন্দ ও কর্মকর্তা কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ। অনুষ্ঠানে ভাষার মাসে ভাষার কবিতা আবৃত্তি করেন কবি রবিউল করিম মুদুল, সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান, অর্থনীতি বিভাগ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান সহযোগী অধ্যাপক মুক্তাশা দিনা চৌধুরী।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *