সিরাজগঞ্জে জলপাই চাষে বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি

সিরাজগঞ্জে জলপাই চাষে বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি

সিরাজগঞ্জে এবার মৌসুমি ফল জলপাইয়ের বাম্পার ফলন হয়েছে। ইতিমধ্যেই জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে উঠেছে জলপাই। যা ভালো দামে বিক্রি করতে পেরে হাসি ফুটেছে চাষীদের মুখে।

জানা যায়, জেলার ৯টি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বাগান ও বাড়ির আঙ্গিনায় এ জলপাই চাষাবাদ করা হচ্ছে। বিশেষ করে কাজিপুর, রায়গঞ্জ, উল্লাপাড়া, তাড়াশ, কামারখন্দ ও সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলায় এ জলপাই চাষাবাদ বেশি হয়। তবে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বাগবাটি, খোকশাবাড়ি ও চরাঞ্চলে এ লাভজনক চাষাবাদ বেশি হয়ে থাকে। এ জলপাই ইতিমধ্যেই জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে উঠেছে এবং সিরাজগঞ্জের জলপাই বলে কদরও রয়েছে। প্রতিবছরের ন্যায় এবারো জলপাই মৌসুম আসার শুরু থেকেই পাইকারি ব্যবসায়ীরা জলপাই সংগ্রহ করে। মৌসুম শুরুর আগেই বাগান মালিকদের অগ্রিম টাকা দিয়ে বাগান কিনে রাখে ব্যবসায়ীরা এবং এ বাগান থেকে জলপাই বিক্রি করেন তারা। এতে জলপাইয়ের ভালো দামও পাচ্ছেন বাগান মালিকেরা। এ লাভজনক জলপাই চাষাবাদে ঝুকছে কৃষকেরা। এ জলপাই উৎপাদন বাড়াতে কাজ করছে সংশ্লিষ্ট কৃষি বিভাগ। বর্তমানে হাট-বাজারে প্রতিকেজি জলপাই ২০ থেকে ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

জলপাই চাষীরা বলেন, মৌসুম শুরুর আগেই অনেক বাগান কিনে নেয় ব্যবসায়ীরা। তবে বাড়ির আঙিনা ও বাগানে লাগানো গাছ থেকে জলপাই বিক্রি করছি এবং দাম ভালো পাচ্ছি।

স্থানীয় জলপাই ব্যবসায়ীরা বলেন, এ জেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ওঠা জলপাই স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ বাবলু কুমার সূত্রধর বলেন, এবার জেলার বিভিন্ন স্থানে অর্থকারী ফসলের পাশাপাশি জলপাই, মাল্টা, কমলা, পেয়ারা, জাম্বুরা চাষাবাদে সংশ্লিষ্ট কৃষি বিভাগ পরামর্শ দিচ্ছে। এবার বাম্পার ফলনের আশা করা হচ্ছে। এখন বাজারে দাম ভালো থাকায় কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *